1. www.mareza583@gmail.com : আল আমিন রেযা : আল আমিন রেযা
  2. newsbanglalatest@gmail.com : banglalatestnews.com :
  3. biswasfahim020@gmail.com : ফাহিম বিশ্বাস : ফাহিম বিশ্বাস
  4. Jobidayasmin55@gmail.com : জোবাইদা ইয়াছমিন : জোবাইদা ইয়াছমিন
  5. tonypaul978@gmail.com : টনি পাল : টনি পাল
লিটন দ্যা আর্টিস্ট - Bangla Latest News লিটন দ্যা আর্টিস্ট - Bangla Latest News
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০১:৫১ পূর্বাহ্ন

লিটন দ্যা আর্টিস্ট

জোবাইদা ইয়াছমিন,ক্রীড়াপ্রতিনিধি
  • সর্বশেষ হালনাগাদ : রবিবার, ২৯ মে, ২০২২
  • ৯৪ বার দেখা হয়েছে

ক্রিকেট হলো পারফর্মিং আর্টের মতো,একজন খেলোয়ার নিজস্ব স্বকিয়তার মাধ্যমে  আলো ছড়াতে পারলে, সকলের মন জয় করতে সক্ষম হয়।
আজকে আমরা বলছি এমন একজন খেলোয়াড়ের কথা, তার নাম লিটন দাশ, তার ব্যাটিং শৈল্পিকতার মুগ্ধতা ছড়িয়ে যা তাকে নিয়ে এক অন্যন্য উচ্চতায়। দারুন ফর্মে আছেন বাংলাদেশের এ খেলোয়াড়।

লিটন দাসের ক্রিজে থাকা যেন এক নিখাত বিনোদন, বাংলাদেশের সবচেয়ে স্টাইলিশ ব্যাটসম্যানের ফুট মুভমেন্ট থেকে শর্ট সিলেকশন আমাদের বুধ করে রাখে অপার মন্ত্র মুগ্ধতায়। কখনো সামনের পায়ে ভর করে পুল, কখনো কাভার ড্রাইভ, স্টেইট ড্রাইভ, কখনো আবার একটা স্কয়ার কাট। এইসব যেনো লিটনের সৃষ্টি। এই শর্টগুলো আরো অনেকেই খেলেন তবে লিটন যখন খেলেন তখন বোঝা যায় এটা আলাদা, অথেনটিক। যেনো ক্রিকেটের অপরুপ এই সৃষ্টিগুলো তাঁর কাছে শুধুই ছেলেখেলা। যেন একটু হাত ঘোরালেই হয়ে যায়।
সেজন্যই তো হার্শা ভোগলে,ইয়ান বিশপের মতো লোকেরা তাকে নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে। কেননা তারাই জানেন লিটনরাই ক্রিকেটের শিল্পী। এমন চোখজুড়ানো শিল্পের প্রসংশা করার মতো শব্দ আমরা কোথায় খুঁজে পাই? শুধু চিৎকার করে বলি- লিটন, দ্যা আর্টিস্ট!
লিটনকে নিয়ে স্বপ্নটা তো সেই অনেক আগে থেকেই। তবে প্রত্যাশার পারদ আকাশ ছুয়িয়ে তরুন লিটনকে তিন ফরম্যাটে গুলিয়ে ফেলা হয়েছিল। তবে একনগার লিটন বেশ পরিনত।
খারাপ সময়ই কার জীবনে আসে না, কিন্তু ওই খারাপ সময়েরও লিটনের ১ টা চার কিংবা ১ টা কাভার ড্রাইভ আমাদের দিতো চোখের শান্তি। প্রতিদিন তার শৈল্পিক ব্যাটিং দেখার আশা নিয়ে বসে থাকতো হাজারো দর্শক আর বারবার হতাশ হয়েছে তারা। কথায় আছে মেঘ দেখে কেউ করিস নে ভয় আড়ালে তার সূর্য হাসে, লিটনের আকাশের মেঘ কেটে গেছে এখন সূর্যটাও রাতে দিনে আলো দিচ্ছে। আলো দেওয়ারই তো কথা কারন ইতিহাস সাক্ষী দেয় পতনের তলানি থেকে সাফল্যের চূড়ায় উঠে। সত্যিকারের সেরা যারা তারা। লিটন কুমার দাস সূর্যের আলোর মত ঝলক দেখানো শুরু করেছে। আসলে লিটনের পথ এতটা সহজ ছিলো না অনেক সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছে তাকে কিন্তু লিটন ধৈর্য্য ও প্রখর মনোবল তাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করেছে।দ.আফ্রিকা সফর, শ্রীলংকা টেস্টে আমারা লিটনের যে ব্যাটিং দেখেছি এটি মনে হয় চোখের প্রশান্তি।লিটনের এমন ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ সবাই। এ প্রসঙ্গে লিটনের ভক্তের কিছু কথা তুলে ধরা হলো,,
লিটনের ব্যাটে ভরা যৌবন এখন কিন্তু খারাপ সময় যে আসবে না তার কোন নিশ্চয়তা নেই। ব্রায়ান লারা থেকে শুরু করে শচীন টেন্ডুলকার সবার ক্যারিয়ারেই খারাপ সময়ই ছিলো লিটনেরও খারাপ সময় আসবে পাশে থাকুন
মানবজন্মের সবচেয়ে আনন্দময় এবং এই দীর্ঘ যাত্রায় কিছু মানুষে কোন, প্রেম কিছুই নেই। আমার প্রেম তার ক্লাসিক ব্যাটিংয়ের সাথে যার শুরু ২০১৪ সালে ভারতের বিপক্ষে টেস্টে ৪৪ রানের ওই ছোট্ট ইনিংসটার মাধ্যমে। প্রেম ধীরে মুছে যায় নক্ষত্রেরও একদিন মরে যেতে হয় কিন্তু আমার প্রেম হয়তো লিটনের অবসরের আগ পর্যন্ত মুছে যাচ্ছে না এইটুকু গ্যারান্টি আমি দিতেই পারি। লিটনের ব্যাটের ফুলঝুরি চলতেই থাকুক। বাবর, কোহলিদের কাতারে নয় আমি বরং লিটনের কাতারে অন্যদের দেখতে চাই।
পরিশেষে আমার ভবিষ্যৎ প্রিয়সীর জন্য কিছু কথা -প্লিজ তুমি কখনো তোমার আর লিটনের কাভার ড্রাইভ থেকে যেকোন একটাকে বেছে নিতে বলো না, আমি পারবো না, বিশ্বাস করো কখনোই পারবো না!

সংবাদটি শেয়ার করুন!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2022 Bangla Latest News
Theme Customized BY ITPolly.Com